নিউজ ডেস্ক- একের পর এক মহিলাকে খুন। এরপর মৃতাদের সাথে যৌন সম্পর্ক। শুধু তাই নয় মৃতার যৌনাঙ্গে লোহার রড ঢুকিয়ে শরীর ছিন্নভিন্ন করতে করতে অদ্ভুত উল্লাসে মেতে উঠতো সিরিয়াল কিলার।ঘটনা বর্ধমানের কালনা। বিকৃত,নৃশংস এই হত্যাকারীর নাম কামরুজ্জামান।

পুলিশের জালে ধরা পড়ার পরে তাকে জেরা করে যে তথ্য উঠে এসেছে তাতে স্তম্ভিত পুলিশ কর্তারাও।
সিরিয়াল কিলার কামরুজ্জামান গত চারমাসে ১১বার এমন হামলা চালিয়েছে। জেরায় সে জানিয়েছে, সে মহিলাদের খুন করার পর মৃতদেহের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করতো ৷ কিন্তু সেইযৌন সম্পর্কে তৃপ্ত না হলে যৌনাঙ্গে লোহার রড ঢুকিয়ে দিত সে৷যৌনাঙ্গ ছিন্নভিন্ন করে এলাকা ছাড়তো সে।
কামরুজ্জামান মহিলা দের গলায় চেন পেঁচিয়ে মারত। তাই চেন ম্যান বলেও পরিচিত কামরুজ্জামান৷ হামলার আগে মোটর সাইকেলে এলাকায় রেইকি করতো অভিযুক্ত সিরিয়াল কিলার৷কখন বাড়িতে মহিলা একা থাকছে তা বুঝে নিয়ে হামলা চালাতো সে। ইলেক্ট্রিক মিটার দেখার নাম করে বাড়িতে ঢুকে অপারেশন শুরু করতো কামরুজ্জামান৷চেন দিয়ে গলা পেঁচিয়ে লোহার রড মাথায় মেরে খুন করতো একলা ঘরে থাকা সেই মহিলাকে।

সিসি টিভির ফুটেজের সূত্র ধরেই ধৃত চেন কিলার৷ লাল বাইক লাল হেলমেট পরে আসত সে৷ এমন এক মহিলাকে ফের খুন করতে বেরিয়েই ধরা পড়ল এই চেন কিলার৷ তার থেকে উদ্ধার হয়েছে লোহার চেন, লোহার রড৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here