নিউজ ডেস্ক- খুনে অভিযুক্ত বাংলাদেশি ছাত্রীকে ৪২ বছরের কারাদণ্ড ঘোষণা করে কঠোরতম শাস্তি দিল অস্ট্রেলিয়ার আদালত৷ তার উপর ৩১ বছর কারাবাস ভোগের আগে প্যারোলে জামিনের আবেদন করতে পারবে না ২৬ বছরের ওই বাংলাদেশি ছাত্রী৷ সোমা নামের ওই বাংলাদেশি ছাত্রী মেলবোর্নে তার বাড়ির মালিককে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে৷ ঘটনার পরই তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ৷

তার আদি বাড়ি ঢাকার মিরপুরে৷ সেখানে পুলিশ খোঁজখবর নিতে গেলে তার ছোট বোনও পুলিশের ওপর চড়াও হয়ে গ্রেপ্তার হয়।
২০১৮ সালের ১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ থেকে স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় যান সোমা। মেলবোর্নে রজার সিংগারাবেলু নামে একজনের বাড়িতে ভাড়া থাকতে শুরু করেন৷

 ন’দিনের মাথায় বাড়ির মালিককে ছুরি নিয়ে হামলা চালিয়ে খুন করে৷এরপরেই সোমাকে গ্রেপ্তার করে সেখানকার পুলিশ। জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে সোমা ওই সন্ত্রাসী হামলা করেন বলে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার গোয়েন্দা রিপোর্টে উঠে আসে
গোয়েন্দা সূত্রে খবর, জেহাদে উদ্ধুদ্ধ ২০১৫ সালে তুরস্ক হয়ে সিরিয়া যেতে চেয়েছিল ঢাকার ছাত্রী মোমেনা সোমা৷ ঢাকার মাস্টার মাইন্ড স্কুল থেকে ‘ও’ এবং ‘এ’ লেবেল শেষ করে সে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে পড়াশোনা শেষ করে। এরপর সে উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাড়ি দেয়৷ তুরস্কের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভরতিও হয়েছিল৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত ভিসা না পাওয়ায় তুরস্কে আর যাওয়া হয়নি৷ সোমার ছোট বোন আসমাউল হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এসব তথ্য হাতে এসেছে গোয়েন্দাদের৷
ভিক্টোরিয়া রাজ্যের আইন অনুযায়ী, হত্যার দায়ে সোমাকে কমপক্ষে ৩১ বছর ৬ মাস কারাগারে থাকতে হবে। তারপরেই সে প্যারলের আবেদন করতে পারবে।অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া সুপ্রিম কোর্টের বিচারক লেসলি টেলর গোটা মামলা শোনার পর এই কঠোর সাজা ঘোষণা করেন৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here