নিউজ ডেস্ক- শহরে পা দিয়েছেন মঙ্গলবার। পরেরদিন বুধবার পৌঁছে গেলেন সোনারপুরের একটি এইচআইভি আক্রান্ত অনাথ শিশুদের হোমে। কচিকাঁচাদের সঙ্গে মিশে গেলেন ভারতীয় ক্রিকেটের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। সেখানে হাসিঠাট্টায় বেশ কিছুক্ষণ সময়ও কাটালেন তিনি। অসুস্থতা যাদের জীবনের খুশি কেড়ে নিয়েছে, ভারতীয় দলের অধিনায়ককে পেয়ে তখন তাদের খুশি দেখে কে?

বিরাটের এই ভূমিকা হাসি ফুটিয়েছে হোম কর্তৃপক্ষের মুখেও।যদিও ওই অনাথ আশ্রমে বিরাটের যাওয়ার কোনও আগাম কর্মসূচীই ছিল না। বুধবার সকালে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুরে একটি বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ের জন্যে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু হঠাতই সেই শুটিংয়ের ফাঁকে তিনি প্রচুর উপহার সামগ্রী নিয়ে হাজির হন এলাকারই একটি অনাথ আশ্রমে। বিরাটকে দেখে তখন অনাথ বাচ্চাগুলোর মুখে চওড়া হাসি।

শুধু উপহার পাওয়াই নয়, ভারতীয় অধিনায়ককে পালটা উপহারও দিয়েছে খুদেরা। বিরাটের টেস্টের সবোর্চ্চ স্কোর ২৫৪-র কথা মাথায় রেখে সমসংখ্যক গোলাপ ফুলের একটি তোড়া উপহার দেওয়া হয় তাঁকে। এমনকী ভারতের অধিনায়ককে বাংলার চা ও চানাচুরও খাওয়ায় তারা।বিরাটেরও চোখেমুখে আনন্দের ঝলক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here