নিউজ ডেস্ক- বাংলাদেশে গ্রেফতার বাউল শিল্পী।অভিযোগ ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করার। তাঁর বিরুদ্ধে আনা হল ধর্মদ্রোহের মামলাও। এনিয়ে তোলপাড় করছেন নেটিজেনরা। তাদের অভিযোগ, একসময় দেশের কট্টপন্থীরা যেভাবে মুক্তমনাদের ওপরে হামলা করতো তা এখন শুরু হয়েছে প্রশাসনের তরফে।
পাশাপাশি বারাতির মুক্তির দাবি করেছেন জসদ-এর সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার।
সম্প্রতি একটি বাউল গানের অনুষ্ঠানে শরিয়ত বরাতি নামে  মির্জাপুর উপজেলার ওই শিল্পী ধর্ম অবমাননা করেছেন বলে অভিযোগ করেন এক ব্যক্তি।  মির্জাপুরের ফরিদুল ইসলাম নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষক এনিয়ে একটি মামলা করেন। সেই মামলার ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার  শরিয়তি বরাতিকে তিন দিন পুলিসি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে টাঙ্গাইলের আদালত।


অভিযোগ ছিল গত ২৪ ডিসেম্বর ঢাকার ধামরাই উপজেলায় এক পালাগানের অনুষ্ঠানে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করেছেন শরিয়াতি বরাতি। সেশ্যাল মিডিয়াতেও ছড়িয়ে পড়ে সেই গান। তার পরেই অভিযোগ দায়ের করেন ওই শিক্ষক।


এদিকে, শরিয়ত বরাতির গ্রেফতারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন বাংলাদেশের একাধিক মহল। জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু শরিয়ত বারাতির গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা করেছেন। পাশাপাশি বারাতির মুক্তির দাবি করেছেন জসদ-এর সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here