নিউজ ডেস্ক- সোমবারই প্রথম মালদহে করোনা পজিটিভ রোগীর খোঁজ মেলে। এরপর থেকেই কারা ওই রোগীর সংস্পর্শে এসেছেন এবং ওই রোগীর মালদহে আসার পর থেকে সমস্ত গতিবিধির পূঙ্খানুপুঙ্খ খোঁজ নেওয়া শুরু করেছে জেলা প্রশাসন। এরপরেই পঞ্চাশেরও বেশী ব্যক্তির তালিকা তৈরি করা হয়েছে।

এদের মধ্যে অন্ততঃ চল্লিশ জন ওই কোয়ারেনটাইন সেন্টারের আবাসিক।এর পাশাপাশি যে গাড়িতে করে ওই ব্যক্তি কোলকাতা থেকে মালদহে আসেন সেই গাড়ির সহযাত্রী, কোয়ারেনটাইন সেন্টারের রাঁধুনী থেকে সাফাই কর্মী, খাবার দেওয়ার কাজে জড়িত কর্মী থেকে শুরু করে যে টোটোতে করে ওই ব্যক্তি কোয়ারেনটাইন সেন্টারে এসেছিলেন সকলেরই তালিকা তৈরি করেছে প্রশাসন।সর্তকতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে এদের প্রত্যেকেরই লালারসের নমুনা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। অন্যদিকে মুর্শিদাবাদ হয়ে বেশ কিছু পরিযায়ী শ্রমিক মালদা জেলায় এসেছে বলে জানা গিয়েছে। যাদের অনেকেই সাইকেলে বা হেঁটেই চলে এসেছে।তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনকে বৈষ্ণবনগরে আটক করে পুলিশ এমনটাই জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here