নিউজ ডেস্ক – ভয়াবহ অভিশপ্ত গ্রাম। জন্মের সাতদিনের মধ্যেই অন্ধ হয়ে যেতে হয় সকলকে। শুধু মানুষ নয়, গরু,ছাগল কুকুর ভেড়া সহ যে কোনও পশুকেও। এমনই অভিশপ্ত এই অন্ধ দের গ্রাম। যে গ্রামে সকলেই অন্ধ। অথচ কেউ জন্মান্ধ নন।জন্মের মাত্র কয়েকদিনের মধ্যেই অন্ধ হয়ে যায় সদ্যোজাত শিশু।


অবিশ্বাস্য হলেও এমনই অদ্ভুৎ ঘটনা ঘটে মেক্সিকোর টিলটেপেক (Tiltepec) নামের একটি ছোট্ট গ্রামে। এই গ্রামে সাকুল্যে ৭০টি কুঁড়েঘরে বসবাস করেন জাপোটেক নামের এক উপজাতী গোষ্ঠীর শ’তিনেক মানুষ। এই গ্রামের সকলেরই রহস্যজনক ভাবে অন্ধ হয়ে যান।এই খবর সামনে আসায় তাজ্জব গোটা দুনিয়া। তৎপরতা দেখিয়েছে মেক্সিকোর প্রশাসনও।


এ ভাবে হঠাৎ অন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণ অনুসন্ধানে গবেষণাও শুরু করেছেন সে দেশের বিজ্ঞানীরা। গবেষণায় বিজ্ঞানীরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন, ঘন জঙ্গলে ঘেরা এই গ্রামে ‘ব্ল্যাক ফ্লাই’ নামের এক বিষাক্ত প্রজাতির মাছির আনাগোণা রয়েছে আর সেই মাছির কামড়ে শৈশবেই দৃষ্টিশক্তি হারায় এই গ্রামের সকলে।


বিজ্ঞানীদের অনুমান, টিলটেপেক গ্রাম সংলগ্ন জঙ্গলেই বাস এই বিষাক্ত ‘ব্ল্যাক ফ্লাই’-এর। তাই মেক্সিকো প্রশাসন এখন ওই এলাকাটিকে ‘ব্ল্যাক ফ্লাই’ মুক্ত করার পরিকল্পনা শুরু করে দিয়েছে। প্রয়োজনে ওই গ্রামের বাসিন্দাদের অন্য কোথাও সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চিন্তা ভাবনাও করছে সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here