নিউজ ডেস্ক- ২৮ দিন ধরে মর্গে পচছে দেহ, বদলি হলেন হাসপাতাল সুপার।রাজ্যে করোনা আবহ। এরই মধ্যে বদলি করা হল বাঘাযতীন স্টেট জেনারেল হাসপাতালের সুপার গৌরব রায়কে। স্বাস্থ্যভবন সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, তাঁকে উত্তর দিনাজপুরে ডেপুটি সিএমওএইচ (২) এর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তাঁর জায়গায় বাঘাযতীন স্টেট জেনারেল হাসপাতালের নতুন সুপার নিযুক্ত হচ্ছেন দেবাশিস মণ্ডল।


সম্প্রতি দক্ষিণ ২৪ পরগনার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিককে চিঠি লেখেন বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী।তাঁর অভিযোগ, গত ২৮ দিন ধরে বাঘাযতীন স্টেট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পরে একটি দেহ। পচে তার থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। অথচ দেহটি সৎকারের কোনও ব্যবস্থা করা হয়নি। বাঘাযতীন হাসপাতাল সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, দেহটি কমল পাত্রের। গত ২৪ মে ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে আসে নেতাজিনগর থানার পুলিশ। ২৭ মে বিকেল ৫ টায় ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। তারপর থেকে দেহটি পরেই ছিল। প্রাক্তন সুপারের দাবি, দেহটি সৎকার প্রসঙ্গে রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা-সহ দক্ষিণ ২৪ পরগনার জেলাশাসককে বারবার অনুরোধ করেও লাভ হয়নি। নেতাজিনগর থানা থেকে দাবিদারহীন ওই মৃতদেহ সৎকারের অনুমতি দিলেও মৃতদেহটি সৎকারের কোনও ব্যবস্থা করতে পারেনি হাসপাতাল। ২৮ দিন ধরে দেহটি পড়ে থাকায় পচন শুরু হয়। তীব্র গন্ধ ছড়াতে থাকে।
এরপরই ঘটনাটি নিয়ে টুইট করেন বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী। সোশ্যাল মিডিয়ায় হৈচৈ হতেই পুলিশ হাসপাতালের সঙ্গে যোগাযোগ করে। অবশেষে বেসরকারি এক সংস্থার মাধ্যমে ২৩ জুন দেহটি সৎকার করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here