নিউজ ডেস্ক – কোরোনার পরে এবার বিউবোনিক প্লেগ চিনে। প্লেগের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আতঙ্ক দেখা দিয়েছে চিনে ৷ গতকাল উত্তর চিনের এক শহরে এই রোগে একজন আক্রান্তের হদিশ মিলেছে ৷


WHO-র তরফে জানানো হয়েছে, সঠিক সময়ে চিকিৎসা না হলে যেকোনও প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তির এতে মৃত্যু হতে পারে ৷ গত বছর ম্যামটের কাঁচা মাংস খেয়ে মঙ্গোলিয়ায় এক দম্পতি বিউবোনিক প্লেগে আক্রান্ত হন ৷ তাঁদের বাঁচানো যায়নি ৷ পাশাপাশি গত সপ্তাহে শূকরের মাংস থেকে ইনফ্লুয়েঞ্জার সংক্রমণের সতর্কতা জারি করা হয়েছিল চিনে ৷


বায়ান্নুরের এক হাসপাতালে গত শনিবার প্রথম প্লেগ আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া যায় ৷ 1 জুলাই চিনের শিনহুয়া সংবাদ সংস্থার তরফে প্রথম বিউবোনিক প্লেগে আক্রান্ত দু’জনের খবর প্রকাশ করা হয় ৷ মঙ্গোলিয়ার খোদ প্রদেশে ল্যাব টেস্টে বিউবোনিক প্লেগ ধরা পড়ে দুই ভাইয়ের শরীরে ৷ এদের মধ্যে একজনের বয়স 27 ও আরেক জনের বয়স 17 ৷ তারা ম্যামটের মাংস খেয়েছিল বলে জানা গেছে ৷ স্বাস্থ্য আধিকারিকরা সাধারণ মানুষকে ম্যামটের মাংস খেতে মানা করেছেন ৷


স্বাস্থ্য আধিকারিকরা জানিয়েছেন যে,চলতি বছরের শেষ পর্যন্ত প্লেগ নিয়ে সতর্কতা জারি থাকবে ৷ শহরে এই মুহূর্তে মানব দেহে প্লেগ ছড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে ৷ সাধারণ মানুষ তাদের মতো করে সতর্ক থাকুন ৷ যদি কোনও অস্বাভাবিক কিছু দেখা যায়, সেক্ষেত্রে প্রশাসনকে যেন জানানো হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here