নিউজ ডেস্ক- ফের চিনকে দোষারোপ করে ভারতের পাশে আমেরিকা।লাদাখের ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার জন্য চিনকে দোষারোপ করে আগেই ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছিল আমেরিকা। এবার একধাপ এগিয়ে আমেরিকার দাবি, করোনাকে ঢাল হিসাবে ব্যবহার করেই ক্রমে আরও বেশি আগ্রাসী হয়ে যাচ্ছে চিন। এবং চিনের এই আগ্রাসী মনোভাব, বিশেষ করে লাদাখে তাদের কর্মকাণ্ড বিশ্ব মোটেই ভালো ভাবে নিচ্ছে না।

এই বিষয়ে মার্কিন প্রতরিক্ষা বিষয়েক সচিব মার্ক এসপার বেজিংকে তোপ দেগে বলেন, ‘চিন করোনাকে তাদের প্রোপাগান্ডা প্রচারের খাতিরে কাজে লাগাচ্ছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা দেখেছি গত সাত মাসে যখন বিশ্ব করোনা ভাইরাসে জর্জরিত, তখন সেই মহামারীর সুযোগ নিয়ে চিন বারবার বিভিন্ন সীমান্ত উত্তেজনা তৈরি করেছে। দক্ষিণ চিন সাগরে তারা ক্রমেই তাদের বাহুবল দেখানোর প্রক্রিয়া জারি রেখেছে।’


তিনি আরও বলেন,’চিন প্রতিবেশী দেশগুলির হাত মুড়িয়ে দিয়ে তাদের এই কঠিন সময়ে হারাতে বদ্ধপরিকর হয়ে উঠেছে। এই কারণেই লাদাখের নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর ক্রমেই আরও সেনা বাড়িয়ে পরিস্থিতিকে উত্তপ্ত করে তুলছে চিন। এরকম আগ্রাসী মনোভাব বিশ্ব মেনে নেবে না। ভিয়েতনাম ও ফিলিপিনসের সঙ্গেও চিন উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here